Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | সাতকানিয়ায় ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে পাঠদান

সাতকানিয়ায় ঝুঁকিপূর্ণ ভবনে পাঠদান

ফাইল ছবি

ফাইল ছবি

নিউজ ডেক্স : সাতকানিয়া উপজেলার পশ্চিম সোনাকানিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবনটি বিগত ৩ বছর যাবত্ ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। নির্মাণ কাজে গাফলতি ও সংস্কার কাজ না হওয়ায় ভবনটির অগণিত অংশে লোহার রড, ইট-সুরকি ও ছাদের পলেস্তারা ওঠে বড় বড় গর্ত সৃষ্টি হয়েছে।
সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, ভবনটি অনেক আগের তৈরি। সিঁড়ি দিয়ে  উঠতেই দেখা মেলে ক্লাস রুমের অনেকাংশে লোহার রড, সিমেন্ট, বালি, পলেস্তারা উঠে গেছে। অফিসের শিক্ষকরা যে স্থানে বসে কাজকর্ম করছেন তার ঠিক উপরের ছাদেও বড় বড় স্থানে পলেস্তারা উঠে গেছে।
অপরদিকে মূল ভবনের অপরপাশে টিন দিয়ে তৈরি একটি রুমে ৫ম ও ৪র্থ শ্রেণির ক্লাস। যার ডান ও বাম পাশের উপরে নেই কোনো ছাউনি। বৃষ্টি আসলেই  ঐরুমে হয় না পাঠদান। এ অবস্থার উত্তরণ না হলে যে কোনো মুহূর্তে ভবন ধসে ভয়াবহ দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।
৫ম শ্রেণিতে পাঠদানরত শিক্ষিকা রহিমা বেগম বলেন, মৃত্যু ঝুঁকির ভয়ে খোলা আকাশের নিচে টিনের তৈরি ক্লাসরুমে কোনো প্রকারে পাঠদান করি।
পশ্চিম সোনাকানিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ এরশাদ হোসাইন ভবনটি বিগত ৩ বছর যাবত্ ধরে ঝুঁকিপূর্ণ স্বীকার করে বলেন, প্রতিদিনই ঝুঁকি নিয়ে কাজ করি। ভবনটির করুণ অবস্থার ব্যাপারে এলাকার জনপ্রতিনিধি ও উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা বরাবরে আবেদন করেছি। সাতকানিয়া উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আশীষ চিরান পশ্চিম সোনাকানিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভবনটি ঝুঁকিপূর্ণ স্বীকার করে বলেন, নতুন ভবন নির্মাণের ব্যবস্থা হচ্ছে।

-ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*