ব্রেকিং নিউজ
Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | সাতকানিয়ায় কারিগরি শাখায় ফলাফল বিপর্যয়ে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

সাতকানিয়ায় কারিগরি শাখায় ফলাফল বিপর্যয়ে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

56

এলনিউজ২৪ডটকম : সাতকানিয়া মডেল উচ্চবিদ্যালয়ের কারিগরী শাখার সব পরীক্ষার্থীই ৩০ মে শনিবার প্রকাশিত এসএসসির ফলাফলে ফেল করেছে। এ কারণে কারিগরী শাখার পরীক্ষার্থীরা বিকাল সাড়ে ৩টা থেকে সাড়ে ৫টা পর্যন্ত বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছে। এ সময় ফরিদুল আলম নামের এক শিক্ষককে পরীক্ষার্থীদের বকাঝকা করতে দেখা গেছে।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও পরীক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, সাতকানিয়া মডেল উচ্চবিদ্যালয়ের কারিগরী শাখা থেকে ২০১৫ সালের এসএসসি পরীক্ষায় ৫৪জন পরীক্ষার্থী অংশ নেন। গতকালকে প্রকাশিত ফলাফলে ৫৪জন পরীক্ষার্থীর সবাই ফেল করেছে।

পরীক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, কারিগরী শাখার নবম শ্রেণিতে ভর্তি হওয়ার পর থেকেই নিয়মিত কোন ক্লাস না হলেও নিয়মিত বেতন আদায় করেছেন বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। তাছাড়া পরীক্ষার ফরম পূরণের সময় অতিরিক্ত টাকা নেয়ার অভিযোগও রয়েছে বিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে। অতিরিক্ত টাকা ফেরত দেওয়ার কথা থাকলেও ব্যবহারিক পরীক্ষায় ভয় দেখিয়ে টাকা ফেরত দেয়নি। অধিকাংশ শিক্ষার্থীরা বলেছে, শিক্ষকদের নিয়মিত পাঠদান অনীহা ও ব্যবহারিক ক্লাস পরীক্ষায় দায়িত্ব অবহেলার কারণে তাঁরা ফেল করেছে।

বিক্ষোভকালে সাংবাদিকদের সঙ্গে ফেল করা পরীক্ষার্থীরা কথা বলতে গেলে ফরিদুল আলম নামের এক শিক্ষক পরীক্ষার্থীদের বকাঝকা করতে থাকেন। নাঈম উদ্দিন নামের এক পরীক্ষার্থী জানান, শিক্ষকদের অবহেলার কারণে আমাদের এই পরিণতি।

অভিভাবক নজরুল ইসলাম বলেন, বেতন, পরীক্ষার ফি, ফরম পূরণ ফি সব কিছু নিতে ভুল হয়নি। বরং সবকিছু বেশি বেশি নিয়েছে। কিন্তু পড়ালেখা কিছুই করাননি। সারা বছর শিক্ষক ছিল না। ছেলেরা কিভাবে পাশ করবে সেদিকে তাদের কোন খেয়াল নেই। সে কারণে ছাত্ররা ফেল করেছে।

জানতে চাইলে সাতকানিয়া মডেল উচ্চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম কারিগরী শাখার সব পরীক্ষার্থীই ফেল করার বিষয় নিশ্চিত করে বলেন, কেন ছাত্ররা ফেল করেছে তা জানতে বোর্ডের সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*