ব্রেকিং নিউজ
Home | শিক্ষাঙ্গন | শিক্ষা কর্মকর্তার পদ সংখ্যা বাড়ানোর সুপারিশ

শিক্ষা কর্মকর্তার পদ সংখ্যা বাড়ানোর সুপারিশ

Govt-sm20160720200233

নিউজ ডেস্ক : সারাদেশে ১ লাখ ২২ হাজার ১৭৬টি প্রাথমিক বিদ্যালয় থাকলে এসব বিদ্যালয় ভবন নির্মাণের জন্য প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে পৃথক কোন প্রকৌশল অধিদফতর নেই। তাই স্কুল বিল্ডিং নির্মাণের জন্য এই দু’টি মন্ত্রণালয়ের অধীনে একটি প্রকৌশল অধিদফতর স্থাপনের তাগিদ দিয়েছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি।

জাতীয় সংসদ ভবনে বুধবার অনুষ্ঠিত কমিটির বৈঠকে এনিয়ে ক্ষোভ ও অসন্তোষ প্রকাশ করা করে কমিটি অতিদ্রুত সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের অধীন প্রকৌশল অধিদফতর স্থাপনের তাগিদ দেয়।

কমিটির সভাপতি মো. মোতাহার হোসেনের সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটির সদস্য প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান, মোহাম্মদ ইলিয়াছ এবং উম্মে রাজিয়া কাজল অংশ নেন। প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. নজরুল ইসলাম খানসহ সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে সংসদ সচিবালয় জানায়, বৈঠকে প্রাথমিক শিক্ষার গুণগতমান উন্নয়ন, বিদ্যালয়গুলোতে নিয়মিতভাবে মনিটরিং কার্যক্রম জোরদার এবং প্রশাসনিক কাজ সুষ্ঠুভাবে সম্পাদনের জন্য উপজেলা ও সহকারী উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তার পদ সংখ্যা বাড়ানোর সুপারিশ করেছে কমিটি। এছাড়া  বৈঠকে প্রাথমিক প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট (পিটিআই) বিহীন ১২টি জেলা সদরে ইনস্টিটিউট স্থাপন কার্যক্রম দ্রুতগতিতে সম্পাদনের সুপারিশ করা হয়।

কমিটি সূত্রে জানা গেছে, বৈঠকে কমিটির বেশ কয়েকজন সদস্য এনিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, দেশে ২৪ ক্যাটাগরিতে ১ লাখ ২২ হাজার ১৭৬টি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে। এরমধ্যে সরকারি বিদ্যালয় ৩৭ হাজার ৬৭২। নতুন করে রেজিস্টার্ড আরও ২৬ হাজার ১৯৩টিকে সরকারিকরণ করা হয়। এসব প্রতিষ্ঠানের ভবন নির্মাণসহ নানা ধরনের উন্নয়ন কাজ করতে হয় বছরজুড়ে। অথচ শিক্ষা অধিদফতরের তত্ত্বাবধানেই এখনও উন্নয়ন কাজ সম্পন্ন করতে হচ্ছে।

ভবন নির্মাণসহ যেকোনো উন্নয়ন কাজের জন্য শিক্ষা অধিদফতরে আবেদন করার পর প্রয়োজনীয় বাজেট অনুমোদন সাপেক্ষে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদফতর, এলজিইডি এবং অনেক সময় প্রজেক্ট গ্রহণ করে বেসরকারি সংস্থার মাধ্যমেও কাজ করানো হয়। এতে সময়ের কাজ সময়ে হয় না। তারা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের জন্য এ মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন পৃথক প্রকৌশল অধিদফতর স্থাপনের জোড় সুপারিশ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*