ব্রেকিং নিউজ
Home | লোহাগাড়ার সংবাদ | লোহাগাড়ায় স্বামী হত্যা প্রচেষ্টার অভিযোগে স্ত্রী আটক

লোহাগাড়ায় স্বামী হত্যা প্রচেষ্টার অভিযোগে স্ত্রী আটক

83

মোঃ জামাল উদ্দিন : লোহাগাড়ার উত্তর পদুয়া মোহাম্মদপুর টেন্ডল পাড়ায় স্ত্রী কর্তৃক স্বামী হত্যার অভিযোগে স্ত্রীকে স্থানীয় জনতা আটক করে থানায় সোপর্দ করেছেন। এ সংক্রান্ত একটি মামলা হয়েছে বলে লোহাগাড়া থানার ডিউটি অফিসার এসআই রেখা সূত্রে জানা গেছে। স্ত্রীর পরকিয়ায় আসক্ত ঘটনার প্রতিবাদ করতে গিয়ে এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানা গেছে।

লোহাগাড়া থানা ও ক্ষতিগ্রস্থ স্বামী নজরুল ইসলাম (৩৭) সূত্রে প্রকাশ, তিনি দীর্ঘদিন প্রবাসের ছিলেন। এ সুযোগে তার স্ত্রী ৩ সন্তানের জননী মুন্নি আক্তার (৩৩) স্থানীয় আইনুল হক (২৮)’র সাথে পরকিয়ায় আসক্ত হয়ে পড়েন। মাস দেড়েক আগে নজরুল ইসলাম বিদেশ থেকে এসে পরকিয়া থেকে ফিরে আসার জন্য স্ত্রীকে বহুবার অনুরোধ করেছেন। ফলে স্ত্রী ক্ষিপ্ত হয়ে আইনুল হকের সাথে যোগসাজসে গত ১০ জুন দিনগত রাতে তাকে হত্যার পরিকল্পনা করেন।

যথারীতি তারা স্বামী-স্ত্রী ঘুমানোর পর পূর্ব থেকে উৎপেতে থাকা আইনুল হকের সহায়তায় স্ত্রী স্বামীকে রাত ৩টার দিকে মুখে কাপড় পেচিয়ে একটি বড় বালতির পানিতে চুপিয়ে ধরেন। তারা নজরুলের অন্ডকোষ চেপে গাছের বাটাম দিয়ে মারাত্মকভাবে পিটিয়ে জখম করেন। ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে নজরুল মুক্ত হয়ে চিৎকার দেন। ফলে তাদের তিন সন্তান জেগে উঠে। তারাও তারস্বরে চিৎকার দেয়। ফলে এলাকাবাসীরা ছুঁটে আসেন। এক ফাঁকে প্রেমিক পালিয়ে গেলেও মুন্নি আক্তার জনতার হাতে আটক হন। তাকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়। আর আহত নজরুলকে লোহাগাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। তিনি বর্তমানে সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

আইনুল হক পালানোর সময় ৫ ভরি ওজনের স্বর্ণালংকার ও নগদ ৫০ হাজার টাকা নিয়ে গেছে বলে অভিযোগপত্রে উল্লেখ করা হয়েছে। মুন্নি দম্পত্তির সন্তানরা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন। লোহাগাড়া থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ শাহজাহান জানিয়েছেন অভিযোগটি বর্তমানে তদন্তাধীন রয়েছে। এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*