Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | রোহিঙ্গা নিবন্ধন ৭ লাখ ছাড়িয়েছে

রোহিঙ্গা নিবন্ধন ৭ লাখ ছাড়িয়েছে

image_printপ্রিন্ট করুন

20170909010507

কায়সার হামিদ মানিক, উখিয়া : মিয়ানমারে জাতিগত নিধনযজ্ঞের শিকার হয়ে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের নিবন্ধন চলছে উখিয়া-টেকনাফের ক্যাম্প গুলোতে। উখিয়া-টেকনাফে ৭টি বুথে রোহিঙ্গাদের নিবন্ধন কার্যক্রম চলছে। এদিকে শাপলাপুরের নতুন রোহিঙ্গা না থাকায় নিবন্ধন বুথটি উনচিপ্রাংয়ে স্থানান্তর করার প্রক্রিয়া চলছে। নিবন্ধন কার্যক্রমে কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের দায়িত্বরত নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আবুল কালাম মো: লুৎফর রহমান জানান, রোববার পর্যন্ত ৭লাখ ৩০হাজার ৬৫৪জন রোহিঙ্গার নিবন্ধন সম্পন্ন করা হয়েছে। তিনি বলেন, কম পরিমাণ কিন্তু নতুন রোহিঙ্গা আসা অব্যাহত রয়েছে। তবে চলতি সনের ডিসেম্বর মাসের মধ্যে নিবন্ধন কার্যক্রম শেষ হবে। নিবন্ধনে পুরাতন রোহিঙ্গারাও অংশ গ্রহণ করায় নিবন্ধিত রোহিঙ্গার সংখ্যা বেড়েছে। অনিবন্ধিত আরো লাখ খানেকের মতো রোহিঙ্গা থাকতে পারে এমনটি ধারণা সংশ্লিষ্টদের। নিবন্ধন কার্যক্রমে দায়িত্বরত বাংলাদেশ পার্সপোর্ট ও ইমিগ্রেশন অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক আবু নোমান মোহাম্মদ জাকের হোসেন বলেন, ১১ সেপ্টেম্বর মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের নিবন্ধন কার্যক্রম শুরু হয়। প্রথম দিকে রোহিঙ্গারা নিবন্ধন কার্যক্রমে অংশ করতে গড়িমসি করায় নিবন্ধন কার্যক্রমে তেমন কোন ইতিবাচক সাড়া মেলেনি। পরবর্তীতে সেনাবাহিনীরা সদস্যরা নিবন্ধন কার্ড ছাড়া রোহিঙ্গাদের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ বন্ধ রাখায় রোহিঙ্গারা বাধ্য হয়ে নিবন্ধন করতে আগ্রহী হয়ে উঠে। ১৯৯২ সালে আসা পুরাতন রোহিঙ্গারাও গোপনে নিবন্ধন করছে। যার ফলে পালিয়ে রোহিঙ্গার সংখ্যা তুলনা মূলক বেড়েছে। তিনি বলেন, চলতি মাসেই নিবন্ধন কার্যক্রম সম্পন্ন করার পরিকল্পনা রয়েছে। পরবর্তীতে নতুন ভাবে রোহিঙ্গা আসলে তাদের ব্যাপারে জানতে চাওয়া হলে ওই কর্মকর্তা তাদেরকেও নিবন্ধনের আওতায় আনা হবে। পার্সপোট ও ইমিগ্রেশন অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক আরো জানান, টেকনাফের শাপলাপুরে অবস্থানরত পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের নিবন্ধন সম্পন্ন করা হয়েছে। তাই শাপলাপুরের নিবন্ধন বুথটি উনচিপ্রাংয়ে স্থানান্তর করার প্রক্রিয়া চলছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!