ব্রেকিং নিউজ
Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | যে গ্রামটি সড়ক দূর্ঘটনায় বিধবা পল্লীতে পরিণত

যে গ্রামটি সড়ক দূর্ঘটনায় বিধবা পল্লীতে পরিণত

peddakunta20151014055136

ভারতের তেলেঙ্গানা রাজ্যের পেদ্দাকুন্তা গ্রাম বিধবাদের গ্রাম বা বিধবা পল্লী নামে পরিচিত। এ গ্রামের সব পুরুষই বিভিন্ন সময় সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেছেন।

পেদ্দাকুন্তা গ্রামের মধ্য দিয়ে যাওয়া ভারতের জাতীয় মহাসড়কের অংশ বাইপাস সড়কের দৈর্ঘ্য প্রায় ৪৪ কিলোমিটার। সাপের মত এঁকেবেঁকে চলা সড়কটি নির্মাণ করা হয়েছিলো ২০০৬ সালে। গ্রামটিতে বসবাসরত ৩৫টি পরিবারের মধ্যে মাত্র একটি পরিবারে রয়েছেন একজন প্রাপ্তবয়স্ক পুরুষ। বাকি সবাই ওই মহাসড়কে দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন। আর এ কারণেই গ্রামটির নামকরণ করা হয়েছে ‘বিধবাপল্লী’ হিসেবে।

স্থানীয়রা জানান, গ্রামটির সব পুরুষই মারা গেছেন রাস্তা পারাপার হতে গিয়ে। কুরা আসলি নামে ২৩ বছরের এক তরুণী ওই গ্রামটির বাসিন্দা। এ বয়সেই তার বিধবার বেশ। তিনি বলেন, আমার স্বামী, ভাই, এমনকি বাবাও সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছেন। গ্রাম পুরুষ শূন্য হয়ে যাওয়ার পর স্থানীয়রা এখন ফুটওভার বা আন্ডারপাস ব্রিজ নির্মাণের দাবি তুলেছেন।

গ্রামবাসীর অভিযোগ, তাদের দাবি কেউ কানেই তোলেন না। মাঝে মাঝে সাংবাদিক ও সরকারি লোকজন আসেন, ছবি নেন, তারপর চলে যান। অবস্থার পরিবর্তন হয় না তাদের।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সড়ক দুর্ঘটনায় পুরো ভারতে বছরে দুই লাখ ৩০ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়। যানবাহন বিশেষজ্ঞদের দাবি, এই দুর্ঘটনা-মৃত্যুর বড় কারণ বেহাল রাস্তা ও বেপরোয়া ড্রাইভিং।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*