Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | ফের ভূমিকম্প দেশের বিভিন্ন স্থানে

ফের ভূমিকম্প দেশের বিভিন্ন স্থানে

images (8)

ইরফান এইচ সায়েম : রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে ফের ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। রবিবার দুপুর ১টা ১১ মিনিটের দিকে ভূকম্পন অনুভূত হয়। প্রায় ৩০ সেকেন্ড ব্যাপ্তির এ ভূমিকম্পের সময় আতঙ্কিত লোকজন বাসাবাড়ি, অফিস আদালত ছেড়ে রাস্তায় নেমে আসেন।

ঠাকুরগাঁও, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, রাজশাহী, যশোর, রাজবাড়ী, দিনাজপুর, নেত্রকোনা, সিলেট, সুনামগঞ্জ, রংপুর, নাটোর, বান্দারবান, খাগড়াছড়ি, পঞ্চগড় ও মেহরেপুরে হঠাৎ ভূমিকম্পে লোকজন আতঙ্কিত হয়ে পড়ে। পুকুরের পানিতে ঢেউ খেলে যায়। প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, রাজধানীর পুরান ঢাকার ওয়ারী জামে মসজিদের উল্টো দিকে রবিবার দুপুরে দুটি ভবন ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ভবন দুটির একটি অপরটির উপর হেলে পড়েছে বলে জানান প্রত্যক্ষদর্শীরা। তারা জানান, সাদা ও লাল রঙের ভবন দুটিতে থাকা বাসিন্দারা এ সময় আতঙ্কে রাস্তায় নেমে আসেন। এ ছাড়া দৈনিক বাংলার মোড় এলাকায় একটি এবং লালবাগ থানার পাশে আরেকটি ভবন হেলে পড়ার খবর দেন প্রত্যক্ষদর্শীরা। তবে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদফতরের ওসি এনায়েত হোসেন জানান, দৈনিক বাংলার মোড় ও লালবাগ থানার পাশের ভবন হেলে পড়ার খবর সত্য নয়। ঘটনাস্থলে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা যান কিন্তু তারা ওই ধরনের কোনো অস্তিত্ব পাননি। তিনি আরও জানান, ওয়ারীতে দুটি ভবনের হেলে পড়ার খবরও সত্য নয়।

এর আগে, শনিবার দুপুরে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে দুই দফা জোরালো ভূকম্পন অনুভূত হয়েছে। কয়েক সেকেন্ড স্থায়ী এ ভূমিকম্পের সময় বিভিন্ন এলাকার মানুষ আতঙ্কে বাসাবাড়ি, অফিস-আদালত, স্কুল-কলেজ ছেড়ে রাস্তায় নেমে আসেন। রিখটার স্কেলে ৭.৫ মাত্রার এ ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল ছিল নেপালের বারপাক অঞ্চলে। এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, রবিবারের ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থলও নেপাল। কাঠমান্ডুর ৮০ কিলোমিটার পূর্বে ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থলে মাত্রা ছিল ৬.৭ রিখটার স্কেল। ভারতের ভূতত্ত্ব বিভাগ সূত্র দাবি করেছে, আরও কয়েকবার ভূমিকম্প হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

এদিকে বাংলাদেশের আবহাওয়া অধিদফতর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, ঢাকা থেকে উত্তর-পূর্ব দিকে ৬১২ কিলোমিটার দূরে নেপালে ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল। ভূমিকম্পের সময় রাজধানী ঢাকার বিভিন্ন এলাকায় বাসাবাড়ি, অফিস ভবন ছেড়ে আতঙ্কিত মানুষ রাস্তায় নেমে আসেন। সচিবালয়ে অবস্থানকারী জানান, ভূমিকম্পের সময় মন্ত্রী, সচিব, কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ সাংবাদিকরা ভবন ছেড়ে বাইরে বেরিয়ে আসেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*