Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | প্রধান বিচারপতি সিনহা বিদেশ যাচ্ছেন!

প্রধান বিচারপতি সিনহা বিদেশ যাচ্ছেন!

image_printপ্রিন্ট করুন
1507086322
নিউজ ডেক্স : শিগগিরই বিদেশ যাচ্ছেন প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহা! চিকিৎসার জন্য তিনি কানাডা অথবা অস্ট্রেলিয়া যেতে পারেন। এ লক্ষ্যে ভিসা গ্রহণের প্রক্রিয়া দু’একদিনের মধ্যে শুরু হবে বলে একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে। এই দুটি দেশে প্রধান বিচারপতির দুই কন্যা বসবাস করছেন।
এদিকে ছুটিতে গিয়ে গতকাল মঙ্গলবার সারাদিন রাজধানীর কাকরাইলের হেয়ার রোডের বাসভবনেই অবস্থান করেছেন প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহা। বাসায় অবস্থান করলেও তার সঙ্গে কারো দেখা করার অনুমতি মেলেনি। বাসভবনের প্রধান ফটকে নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে।
এদিকে প্রধান বিচারপতির আকস্মিক ছুটিতে যাওয়ার ঘটনায় বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছেন বিএনপিপন্থী আইনজীবীরা। এমনকি সুপ্রিম কোর্টের জ্যেষ্ঠ আইনজীবীরাও উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। তারা বলেছেন, এ ধরনের ঘটনা কারো জন্য মঙ্গলজনক নয়। তবে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম সাংবাদিকদের বলেছেন, প্রধান বিচারপতি কোথায় আছেন আমি জানি না। আমার জানার কথা না। তাছাড়া অসুস্থ হলে যদি দেখা করার অনুমতি না দেন তাহলে তো জোড় করে দেখতে যাওয়া যায় না।
প্রসঙ্গত এক মাসের ছুটি নিয়ে সোমবার দুপুরে সুপ্রিম কোর্ট থেকে বাসায় যান প্রধান বিচারপতি। এরপর থেকে তিনি বাসায় অবস্থান করছেন। প্রধান বিচারপতি ছুটিতে যাওয়ায় ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতির দায়িত্ব দেয়া হয়েছে আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠ বিচারক মোহাম্মদ আবদুল ওয়াহহাব মিঞাকে। প্রধান বিচারপতি আকস্মিক ছুটিতে যাওয়ার খবরে সোমবার তার সঙ্গে দেখা করতে যান সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নেতারা। কিন্তু দেখা করার অনুমতি না পেয়ে তারা ফিরে আসেন। এদিকে বার সভাপতি জয়নুল আবেদীন গতকাল বলেছেন, প্রচণ্ড চাপ দিয়ে প্রধান বিচারপতিকে ছুটিতে যেতে বাধ্য করা হয়েছে। এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।
ছুটিতে যাওয়া বিচার বিভাগের জন্য অশনি সংকেত:
গণতান্ত্রিক আইনজীবী সমিতি
গণতান্ত্রিক আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মো. জাহিদুল বারি গতকাল এক বিবৃতিতে বলেছেন, অবকাশকালীন দীর্ঘ ছুটি কাটিয়ে কাজে যোগদান করেছিলেন প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহা। তিনি গত এক সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে কাজও করেছেন। এ অবস্থায় সোমবার দুপুরের পর এমন কি ঘটলো যে হঠাৎ করে আবারো এক মাসের ছুটিতে গেলেন তিনি। বিষয়টি অস্বাভাবিক এবং দেশ ও বিচার বিভাগের প্রতি অশনি সংকেত। -ইত্তেফাক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!