ব্রেকিং নিউজ
Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | নতুন পে স্কেলের বর্ধিত বেতন পেতে নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে

নতুন পে স্কেলের বর্ধিত বেতন পেতে নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে

Government120150909094610

গত সোমবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার বৈঠকে অনুমোদন পেয়েছে নতুন পে-স্কেল। তবে নতুন বেতন কাঠামো বাস্তবায়নে গেজেট জারি এবং আনুষঙ্গিক কাজ শেষ করতে আরো প্রায় এক-দেড় মাস সময় লাগবে। ফলে নতুন পে স্কেলের বর্ধিত বেতন পেতে নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে সরকারি চাকরিজীবীদের।

সূত্রে জানা যায়, ঈদুল আজহা উপলক্ষে ২২ সেপ্টেম্বরের মধ্যেই চলতি মাসের বেতন পরিশোধ করা হবে। ফলে চলতি মাসের (সেপ্টেম্বর) বেতন প্রক্রিয়া কোনো কোনো দফতর শেষ করে ফেলেছে। যত দ্রুতই গেজেট জারি হোক না কেন, সেপ্টেম্বরের বেতন নতুন কাঠামোয় পাওয়ার কোনো সুযোগ নেই। তবে জুলাই, আগস্ট ও সেপ্টেম্বর মাসের বর্ধিত মূল বেতন বকেয়া হিসেবে একসঙ্গে নভেম্বর মাসে পেতে পারেন কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের এক সিনিয়র সচিব জানান, এখন নতুন কাঠামোর গেজেট জারি করা হবে। অনেকগুলো কপি তৈরি করতে হবে। এতে সব মিলিয়ে এক-দেড় মাস সময় লাগবে। ঈদের আগে এসব কাজ শেষ করা যাবে না। তবে নভেম্বরের শুরুতে অক্টোবরের বেতন নতুন কাঠামো অনুযায়ী পাওয়া যাবে।

প্রসঙ্গত, সর্বোচ্চ বেতন (গ্রেড-১) ৭৮ হাজার টাকা এবং সর্বনিম্ন (গ্রেড-২০) আট হাজার ২৫০ টাকা নির্ধারণ করে গত সোমবার নতুন বেতন কাঠামোর অনুমোদন দিয়েছে সরকার। এ কাঠামোয় আগের মতো ২০টি গ্রেড থাকছে। বেতন ও চাকরি কমিশন ২০১৩, সশস্ত্রবাহিনী বেতন কমিটি ২০১৩ এ সংক্রান্ত সচিব কমিটির সুপারিশের আলোকে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য নতুন এ বেতন কাঠামো ও ভাতা অনুমোদন করেছে মন্ত্রিসভা।

সাধারণত পাঁচ বছর পর পর সরকারি চাকরিজীবীদের জন্য নতুন বেতন কমিশন গঠন করে নতুন বেতন কাঠামো ঘোষণা করা হয়। এটাই রেওয়াজে পরিণত হয়েছে। নতুন বেতন কাঠামোতে প্রতিবছর গ্রেড ভেদে ৩ দশমিক ৫ থেকে ৫ শতাংশ পর্যন্ত ইনক্রিমেন্ট ব্যবস্থা চালু হওয়ায় তার আর দরকার হবে না। এছাড়া প্রতিবছর মূল্যস্ফীতির সঙ্গে সমন্বয় করে মন্ত্রিসভা বেতন কাঠামো পর্যালোচনা করে গ্রেডওয়ারি বেতন বাড়াবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*