ব্রেকিং নিউজ
Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | দ্বীনি এবং দুনিয়াবী বলে জ্ঞানকে বিভক্তির কোন অবকাশ নেই : ড. নদভী এমপি

দ্বীনি এবং দুনিয়াবী বলে জ্ঞানকে বিভক্তির কোন অবকাশ নেই : ড. নদভী এমপি

15825852_1245676952192605_3512945966098454085_n

এলনিউজ২৪ডটকম : চট্টগ্রাম-১৫ সাতকানিয়া-লোহাগাড়া আসনের সাংসদ প্রফেসর ড. আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দিন নদভী বলেন, দ্বীনি এবং দুনিয়াবী বলে জ্ঞানকে বিভক্তির কোন অবকাশ নেই। মহানবী (স.) সকল মুসলিম নর-নারীর জন্য জ্ঞানকে ফরজ ঘোষনা করে জ্ঞানকে সর্বোচ্চ মর্যাদার আসনে সমাচীন করেছেন। তিনি ২টি জ্ঞানের কথা উল্লেখ করেছেন ১টি হচ্ছে কল্যাণকর, অপরটি হচ্ছে ধ্বংসাত্মক জ্ঞান। যে জ্ঞান সৃষ্টি এবং স্রষ্টার মাঝে যোগসূত্রের পাশাপাশি মনুষ্য জগতের জন্য কল্যাণ বয়ে আনে এমন জ্ঞান হচ্ছে কল্যাণকর জ্ঞান। আর যে জ্ঞান মনুষ্য জগতের জন্য ধ্বংস ডেকে আনে তা হচ্ছে অকল্যাণকর জ্ঞান। বর্তমান বিশ্বে আমরা এ ২টি জ্ঞানের চর্চা দেখতে পাই। তিনি বলেন, স্থান, কাল,পাত্র ও ধর্মীয় মূল্যবোধের কারণে কল্যাণমূলক জ্ঞান চর্চায় পার্থক্য পরিলক্ষিত হলেও এ জ্ঞান চর্চা যুগেযুগে মানব সভ্যতা বিকাশে ব্যাপক অবদান রেখেছে।

তিনি আজ ৪ জানুয়ারী ২০১৭ইং বুধবার বিকাল ৪ টায় বাঙালি জাতীয়তাবাদ ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী বেসরকারি স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসার শিক্ষকদের পেশাজীবি সংগঠন স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদ (স্বাশিপ) এর উদ্যোগে চট্টগ্রাম জেলা পরিষদ মিলনায়তনে “এডুকেশন এট দ্যা গ্লোব” শীর্ষক সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। স্বাশিপ চট্টগ্রাম মহানগর সভাপতি ও কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ড. আবুল আলা মুহাম্মদ হোছামুদ্দিনের সভাপতিত্বে সেমিনারে সম্মানিত অতিথি ছিলেন মরক্কোর ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব আগাধীর ভিসি প্রফেসর ড. আজিজ বুসলিখান। মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন একই বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক ও ডাইরেক্টর প্রফেসর মুহাম্মদ মুহিউদ্দিন।

মরক্কোর আগাধী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর ড. আজিজ বুসলিখান বলেন, বর্তমান বিশ্বায়নের যুগে জ্ঞানকে কোন ভাষা, জাতি এবং স্থানে সীমাবদ্ধ রাখার কোন সুযোগ নেই। সমন্বিত জ্ঞান চর্চায় কেবল বর্তমান বিশ্বকে অনেক দূর এগিয়ে নিয়ে যেতে পারে। একই বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক ও ডাইরেক্টর প্রফেসর মুহাম্মদ মুহিউদ্দিন বলেন, বিশ্বায়নের পরিধির যত বিস্তৃত হচ্ছে জ্ঞান চর্চাও তত বৃদ্ধি পাচ্ছে। বর্তমান প্রতিযোগিতামূলক বিশ্বায়নের যুগে স্বকীয় বৈশিষ্ট্য ও মূল্যবোধ নিয়ে ঠিকে থাকতে হলে বহুমুখী ব্যাপক জ্ঞান চর্চার কোন বিকল্প নেই। তিনি বাংলাদেশী ছাত্র-ছাত্রীদের মেধার ভূঁয়সি প্রশংসা করে বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন বিখ্যাত বিশ্ববিদ্যালয় ও গবেষণা কেন্দ্রে বাংলাদেশী ও বাংলাদেশী বংশোদ্ভুতদের ব্যাপক কৃতিত্বের স্বাক্ষর রাখার ফলে বিশ্বে বাংলাদেশের সুনাম ও সু-খ্যাতি দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।

স্বাশিপ চট্টগ্রাম মহানগরীর যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ হারুন চৌধুরী ও অধ্যক্ষ মাওলানা মহিউল হকের সঞ্চালনায় সেমিনারে অন্যান্যের মাঝে বক্তব্য রাখেন স্বাশিপ চট্টগ্রাম মহানগরীর সহ-সভাপতি রেজাউল করিম ছিদ্দিকী, ওমর গণি এমইএস কলেজের অধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম, সৈয়দ মোহাম্মদ কুতুব উদ্দিন, সৈয়দ মোহাম্মদ খালেদ, অধ্যাপিকা জেসমিন আক্তার শিমুল, জামাল সাত্তার, আবু নাঈম ইব্রাহিম, স্বাশিপ চট্টগ্রাম উত্তর জেলা মাদ্রাসা ইউনিট সভাপতি ইরফানুল করিম, অধ্যক্ষ রিদুয়ানুল হক। শিক্ষার্থীদের মাঝে বক্তব্য রাখেন এমইএস কলেজের ছাত্র ফারুক আযম ও চট্টগ্রাম ক্যান্টনমেন্ট কলেজের ছাত্রী জুমাইনা তানযীহ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*