ব্রেকিং নিউজ
Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | দেশে প্রতিদিন ৪০ জন মহিলা স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত হচ্ছেন

দেশে প্রতিদিন ৪০ জন মহিলা স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত হচ্ছেন

cancer20151010104133

দেশে প্রতিদিন ৪০ জন মহিলা স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত হচ্ছেন। যথাযথ সময়ে চিকিৎসা শুরু করতে না পারার কারণে প্রতিদিন মারা যাচ্ছেন প্রায় ২০জন মহিলা। বাংলাদেশে নারী ও পুরুষ মিলিয়ে ক্যান্সার আক্রান্ত মোট রোগীদের মধ্যে সর্বোচ্চ সংখ্যক স্তন ক্যান্সারের রোগী।

ফ্রান্সভিত্তিক ক্যান্সার গবেষণার আন্তজার্তিক প্রতিষ্ঠান ইন্টারন্যাশনাল এজেন্সি ফর রিসার্চ অন ক্যান্সার (আইএআরসি) প্রকাশিত গ্লোবোকেন-২০১২ শীর্ষক প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে।

বাংলাদেশ স্তন ক্যান্সার সচেতনতা ফোরামের প্রধান সমন্বয়কারী ও জাতীয় ক্যান্সার গবেষণা ইনস্টিটিউটের ক্যান্সার ইপিডেমিওলজি বিভাগের প্রধান ডা. মো.হাবিবুল্লাহ তালুকদার জানান, আমাদের দেশে জনসংখ্যাভিত্তিক কোনো গবেষণা না থাকায় আইএআরসির তথ্যের ওপর নির্ভর করতে হয়।

তিনি জানান, সচেতনতার অভাবে বেশিরভাগ মহিলা স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত হচ্ছেন। প্রাথমিক পর্যায়ে এ রোগ শনাক্ত না হওয়ায় বহু মহিলার অনাকাঙ্ক্ষিত মৃত্যু হচ্ছে উল্লেখ করে বলেন, শিশুকে বুকের দুধ নিয়মিত খাওয়ানোর পাশাপাশি ব্রেস্টে বা স্তনের নীচে কোন প্রকার অস্বাভাবিকতা  (যেমন চাকা/পিণ্ড, নিপল ভেতরের দিকে ধেবে  যাওয়া, কমলালেবুর খোঁসার মতো আকার ধারণ ইত্যাদি) দেখা দিলে নিকটস্থ চিকিৎসকের কাছে পরামর্শ নিলে স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার হাত থেকে সহজেই পরিত্রাণ পাওয়া সম্ভব। প্রাথমিক পর্যায়ে ধরা পড়লে স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত রোগী সম্পূর্ণরূপে নিরাময় লাভ করতে পারেন।

সরকারি বেসরকারি পর্যায়ে সম্মিলিত প্রচেষ্টার মাধ্যমে ব্যাপক জনসচেতনতা গড়ে তুলতে পারলে আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বহুলাংশে হ্রাস করা সম্ভব মন্তব্য করে তিনি জানান, বাংলাদেশ স্তন ক্যান্সার সচেতনতা ফোরামের আয়োজনে রাজধানীসহ সারাদেশের ৩৫ জেলায় লিফলেট বিতরণ ও আলোচনাসভার মাধ্যমে আজ ক্যান্সার সচেতনতা দিবস পালিত হচ্ছে।

এ ফোরামের আয়োজনে আজ জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে মিট দ্য প্রেস অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এ উপলক্ষে গোলাপী আভায় উদ্ভাসিত হয়ে উঠেছিল গোটা লাউঞ্জ। স্তন ক্যান্সার সচেতনতার প্রতিক গোলাপী রংয়ের পোশাক পরে চিকিৎসক, গবেষক, সাংস্কৃতিক কর্মী ও মিডিয়া ব্যক্তিত্বসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়েছিলেন। এ বছর দিবসের প্রতিপাদ্য ‘ জেগে উঠুন, জেনে নিন’।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বারবার স্তন ক্যান্সার রোগটি সম্পর্কে অধিক জনসচেতনতার ওপর গুরত্বারোপ করেন। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ক্যান্সার সোসাইটির মহাসচিব অধ্যাপক ডা. শেখ গোলাম মোস্তফা, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের অনকোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক সারওয়ার আলম, গাইনী বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা.সাবেরা খাতুন, মাতুয়াইলের মা ও শিশু স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক ডা. সারিয়া তাসনিম, আইসিডিডিআরবির ক্রনিক ডিজিজ বিভাগের অর্ন্তবর্তী প্রধান ড. আলিয়া নাহিদ, ক্যান্সার সার্জন ডা. হাসানুজ্জামান, ব্রেস্ট ক্যান্সার সারভাইভার অধ্যক্ষ রোকেয়া রুমি ও নিলুফার তাসনিম প্রমুখ।

বাংলাদেশ ক্যান্সার সোসাইটির মহাসচিব অধ্যাপক ডা. শেখ গোলাম মোস্তফা অনুষ্ঠানে বক্তৃতাকালে বলেন, দেশে ক্যান্সার বিশেষজ্ঞদের সংখ্যা তুলনামুলকভাবে কম। যারা আছেন  তাদের দুই তৃতীয়াংশ শহরে বাস করেন। তবে জেলা পর্যায়ের বিভিন্ন বিষয়ের সার্জনদের স্বল্পকালীন প্রশিক্ষণের মাধ্যমে স্তন ক্যান্সারের সার্জারির চিকিৎসা প্রদানে সক্ষম করে তোলা সম্ভব।

ডা. হাবিবুল্লাহ তালুকদার জানান, আগামী ১১ থেকে ৩০ অক্টোবর পর্যন্ত যে কোনো  দিন যে কোন প্রতিষ্ঠান, কর্মস্থল কিংবা এলাকাভিত্তিক সচেতনতা কর্মসূচি পালন করতে চাইলে ফোরাম সহায়তা করবে। আগামী ৩১ অক্টোবর শনিবার সকাল ৯টায় জাতীয় প্রেসক্লাব থেকে গোলাপী সড়ক যাত্রা শুরু হবে। গোলাপী পোশাক ও রিবন পরিধাণ  করে যে কেউ স্তন ক্যান্সার সচেতনতা কার্যক্রমে যোগদান করতে পারবেন বলে তিনি জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*