ব্রেকিং নিউজ
Home | অন্যান্য সংবাদ | ডিজিটাল বাংলাদেশ এখন আর স্বপ্ন নয়, বাস্তবতা

ডিজিটাল বাংলাদেশ এখন আর স্বপ্ন নয়, বাস্তবতা

Saltamami-2015-lg20151219034833

নিউজ ডেস্ক : তথ্যপ্রযুক্তির অবাধ প্রবাহের এ যুগে বাংলাদেশ আজ সামনের সারির একটি দেশ। সরকারের সময়োচিত পদক্ষেপের ফলে গত সাড়ে ছয় বছরে দেশে তথ্যপ্রযুক্তি উন্নয়নেরক্ষেত্রে এক যুগান্তকারী বিপ্লব ঘটেছে। দেশে ইন্টারনেট ব্যবহার বেড়েছে গাণিতিক হারে। শহরাঞ্চলে ঘরে ঘরে ইন্টারনেটের উপস্থিতি ছাড়াও প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলেও এর উপস্থিতি চোখে পড়ার মতো। শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি থেকে শুরু করে রেজিস্ট্রেশন এবং ফল নিজেরাই কম্পিউটার বা মোবাইল ফোনের মাধ্যমে জানতে পারছে। বিদেশে যাওয়ার ভিসার আবেদনপত্র ঘরে বসেই পূরণ করছেন অনলাইনে। প্রযুক্তি বিজ্ঞানীদের মতে, ডিজিটাল বাংলাদেশ এখন আর স্বপ্ন নয়, বাস্তবতা।

বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি কমিশন (বিটিআরসি) সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে দেশে ইন্টারনেট গ্রাহক সংখ্যা ৫ কোটি ৪৯ লাখ ৫৯ হাজার জন। গত দুই মাস আগে যা ছিল ৫ কোটি ২২ লাখ ১৯ হাজার জন। এর মধ্যে মোবাইল ইন্টারনেট গ্রাহক ৫ কোটি ২১ লাখ ৮৮ হাজার জন। দুই মাস আগে ছিল ৫ কোটি সাত লাখ ৪৩ হাজার। ওয়াইম্যাক্স ব্যবহার করছেন ১ লাখ ৮১ হাজার ও আইএসপি ও পিএসটিএন ইন্টারনেট গ্রাহক ১৯ লাখ ২১ হাজার জন গ্রাহক।

সম্প্রতি বিটিআরসি’র এক প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, গত নভেম্বর মাস পর্যন্ত দেশে ৬টি মোবাইল কোম্পানির মোট গ্রাহক সংখ্যা ১৩ কোটি ১৫ লাখ ৩৮ হাজার। যা গত মাসের আগে ছিল ১৩ কোটি ৮ লাখ ৪৩ হাজার।

বর্তমান সরকার ২০০৮ সালে ক্ষমতায় আসার আগেই বাংলাদেশকে ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ’ হিসেবে প্রতিষ্ঠার অঙ্গীকার করেন বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সমগ্র দেশকে ইন্টারনেটের আওতায় আনা সেই অঙ্গীকারেরই একটি অংশ। সরকারে এই অঙ্গীকার পূরণে নিরলসভাবে কাজ করছেন সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় ও বিভাগগুলো।

এ বিষয়ে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ আজ আর কোনো স্বপ্ন নয়। দেশের ৯৯ ভাগ এলাকা মোবাইল নেটওয়ার্কের আওতায় এসেছে। দেশে থ্রি-জি প্রযুক্তির মোবাইল নেটওয়ার্ক চালু করা হয়েছে। ফোর-জি প্রযুক্তি অচিরেই চালু করা হবে। তরুণ তরুণীদের হাতের মুঠোয় ইন্টারনেট। পৃথিবীটা তাদের হাতের মুঠোয় এসেছে ইন্টারনেটের কল্যাণে। এখন গ্রামাঞ্চলের তরুণরা ইন্টারনেট ব্যবহারে অনেক এগিয়ে গেছে, যা গত কয়েক বছর আগেও কল্পনা করা যায়নি।

তিনি আরো বলেন, আমাদের অর্থনীতির এই মুহূর্তে সবচেয়ে গুরুত্বর্পূণ বিষয় হয়ে গেছে ইন্টারনেট। বোমা মারা আর মানুষ মারার রাজনীতি তরুণরা দেখতে চায় না। কারণ, আমাদের গন্তব্য প্রযুক্তি নির্ভর জাতি ও ডিজিটাল বাংলাদেশ।

তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ মোস্তাফা জব্বার বলেন, প্রযুক্তিতে সমৃদ্ধ করে এদেশের ১৬ কোটি মানুষের জীবনকে সুখি সমৃদ্ধশালী করা এখন আর স্বপ্ন নয়। ক্ষুধা, দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশ গড়তে ডিজিটাল বাংলাদেশের বিকল্প নেই। আর এই ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের কারিগর হলো তরুণ প্রজন্ম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*