ব্রেকিং নিউজ
Home | উন্মুক্ত পাতা | টার্মিনালের জায়গাও দখলমুক্ত করা হোক

টার্মিনালের জায়গাও দখলমুক্ত করা হোক

24

মারুফ খান : লোহাগাড়া বটতলী মোটর ষ্টেশনের বাস টার্মিনাল না থাকায় প্রতিনিয়ত যানজট লেগেই আছে। ফলে প্রতিনিয়ত জনদূর্ভোগ চরমে। এছাড়া লোহাগাড়া বটতলী মোটর ষ্টেশনে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের দু’পাশে সড়ক ও জনপথ বিভাগের অধিগ্রহণকৃত জায়গায় অবৈধ স্থাপনা করেছেন প্রভাবশালীরা।

উক্ত অবৈধ স্থাপনা অপসারণ করা প্রয়োজন মর্মে দোহাজারী সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী জানিয়েছেন। তারই প্রেক্ষিতে আগামী ২০-২২ মার্চ এসব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের নির্দেশ দিয়েছেন সওজ’র চট্টগ্রাম জোনের এস্টেট ও আইন কর্মকর্তা মোঃ আবদুল মান্নান। ইতোমধ্যে সওজ কর্তৃপক্ষ বটতলী মোটর ষ্টেশনে মহাসড়কের দু’পাশে পরিমাপ করে সওজ’র অধিগ্রহণকৃত জায়গা চিহ্নিত করেছে।

এ ব্যাপারে দোহাজারী সড়ক বিভাগের সাথে যোগাযোগ করা হলে জানানো হয়েছে, মন্ত্রীর নির্দেশেই এ কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। এখানে এমপি সাহেবের কোন অনুরোধ রাখা তাদের পক্ষে সম্ভব নয়। যথাসময়ে উচ্ছেদ কার্যক্রম শুরু হবে।

উল্লেখ্য, দু’মাস আগে অনুরূপভাবে উচ্ছেদ কার্যক্রম চলছিল। ব্যবসায়ীরা স্থানীয় সংসদ সদস্য প্রফেসর ড. আবু রেজা মুহাম্মদ নেজাম উদ্দিন নদভীর শরনাপন্ন হলে তিনি উচ্ছেদ কার্যক্রম সাময়িক বন্ধ রাখার ব্যবস্থা নেন। এখনও জনমনে প্রশ্ন উঠেছে যথাসময়ে উচ্ছেদ কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে তো ?

অপরদিকে, আমিরাবাদ পুরাতন বিওসি এলাকায় বাস টার্মিনালের জন্য নির্ধারিত সড়ক ও জনপথ বিভাগের জায়গা অবৈধভাবে দখল করেছে একটি প্রভাবশালী মহল। ওই মহল দীর্ঘদিন যাবত সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে ম্যানেজ করে এসব অবৈধ জায়গা নিজের আয়ত্বে রেখেছে।

এ ব্যাপারে বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় বহু লেখালেখি হয়েছে। বিভিন্ন দপ্তরে অনেক চিঠি চালাচালিও হয়েছে। কিন্তু অবৈধ ওই দখলদার থিথু হয়ে আছেন। লোহাগাড়ার সচেতন মহল দাবী জানিয়েছেন, বটতলী মোটর ষ্টেশনের মহাসড়কের দু’পাশের অবৈধ স্থাপনা দখলমুক্ত করার সাথে সাথে টার্মিনালের জন্য নির্ধারিত জায়গাও অবৈধ দখলমুক্ত করার। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্টদের দৃষ্টি আকর্ষণ কামনা করেছেন এলাকাবাসী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*