ব্রেকিং নিউজ
Home | লোহাগাড়ার সংবাদ | চলাচলের অযোগ্য জঙ্গল পদুয়া সড়ক

চলাচলের অযোগ্য জঙ্গল পদুয়া সড়ক

326

এলনিউজ২৪ডটকম : লোহাগাড়ার জঙ্গল পদুয়া সড়কটি দীর্ঘদিন চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়ায় এলাকাবাসীরা মারাত্মক দূর্ভোগ পোহাচ্ছেন। সরেজমিন পরিদর্শনে জনদূর্ভোগের ভয়াবহতা প্রত্যক্ষ করেছেন। রাস্তাটি আরকান সড়কে অবস্থিত পদুয়া ঠাকুরদিঘী সংযোগ থেকে শুরু হয়ে পদুয়া, জঙ্গল পদুয়া, ধইন্যারবিল অতিক্রম করে ভাগ্যেরকুল পর্যন্ত বিস্তৃত।

রাস্তাটি অতীব গুরুত্বপূর্ণ। প্রতিদিন ইট, বালু ও বড় বড় কাঠবাহী ট্রাক এ রাস্তা অতিক্রম করে। জঙ্গল পদুয়া পাহাড়ে বহু মৎস্যখামার রয়েছে। মাছবাহী গাড়ি হতে নিসৃত পানি রাস্তার উপরে পড়ে বলে মাটি নরম হয়ে যায়। নরম মাটির উপর দিয়ে ভারী ট্রাক চলাচল করায় রাস্তাটি ধ্বংস হয়ে যায়। দেবে যায়। প্রতিদিন এ রাস্তা অতিক্রম করে শত শত এলাকাবাসী সব্জী পরিবহণ করেন।

রাস্তার উপরে উত্তর পদুয়া উচ্চ বিদ্যালয়, প্রাথমিক বিদ্যালয়সহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান অবস্থিত। এলাকার শাহ ছাহেব পাড়া, জঙ্গল পদুয়া, উত্তর পদুয়া ও পদুয়ার বহু গ্রাম অবস্থিত। গ্রামবাসীদের যোগাযোগের অন্যতম অবলম্বন রাস্তাটি।

রাস্তায় ঠাকুরদিঘী হতে আড়াই কিলোমিটার টেকের দোকান পর্যন্ত স্থানে অনধিক ২০টি বড় বড় গর্ত রয়েছে। বৃষ্টি হলেই যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ হয়ে যায় বলে ভূক্তভোগীরা জানিয়েছেন। এ রাস্তা অতিক্রম করে ভাগ্যেরকুল হয়ে বান্দরবানের কদুখোলা ও সুয়ালক পর্যন্ত যাতায়াত করা যায়। পদুয়া হাসপাতালে আসার সহজ পথ এ রাস্তা। সুয়ালক, কদুখোলা ও সন্নিহিত ভাগ্যকুল উপজাতী পাড়া হতে রোগী আনতে মারাত্মক দূর্ভোগ পোহাতে হয়। এলাকাবাসীর দূর্ভোগের অন্ত নেই।

প্রফেসর ড. আবু রেজা মুহাম্মদ নেজাম উদ্দিন নদভী এমপি স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের উর্ধতন প্রকৌশলীকে নিয়ে রাস্তাটি পরিদর্শন করেছিলেন। তিনি এলাকাবাসীদের আশ্বাস্ত করেছিলেন অনতিবিলম্বে তাদের দূর্ভোগ লাঘব হবে। রাস্তাটি মেরামত হবে।

এ ব্যাপারে বহু লেখালেখি হয়েছে। এমপি’র আশ্বাস কিংবা এলাকাবাসীদের লেখালেখির কোন কিনারা হয়নি। রাস্তার উপরে হাঙ্গর খালের সেতুটিও অবৈধ বালু উত্তোলন ও নানাবিধ কারণে ধ্বংস হওয়ার পথে। এলাকাবাসীদের চোখের পানি হাঙ্গরের পানির সাথে মিশে একাকার হচ্ছে। তারা অনতিবিলম্বে দূর্ভোগ লাঘবের জন্য রাস্তা সংস্কার ও সেতুটি মেরামতের জন্য সংশ্লিষ্ট উর্ধতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*