Home | ব্রেকিং নিউজ | চলতি বছর অটোপাস দেওয়া সম্ভব নয় : শিক্ষামন্ত্রী

চলতি বছর অটোপাস দেওয়া সম্ভব নয় : শিক্ষামন্ত্রী

image_printপ্রিন্ট করুন

নিউজ ডেক্স : চলতি বছরে এসএসসি এবং এইচএসসি পরীক্ষার সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে অনুষ্ঠিত হবে জানিয়ে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, ২০২১ সালে যারা পরীক্ষার্থীদের আছে তাদের অটো পাস দেওয়া সম্ভব নয়।
 
সোমবার (২৫ জানুয়ারি) ঢাকায় জাতীয় শিক্ষা ব্যবস্থাপনা একাডেমিতে (নায়েম) এক অনুষ্ঠানে অনলাইনে যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এবছর এসএসসি এবং এইচএসসি পরীক্ষা সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে অনুষ্ঠিত হবে। এসএসসি এবং এইচএসসি পরীক্ষার্থীদের জন্য তিন থেকে চার মাসে প্রস্তুতি নেওয়া যাবে এমন একটি সংক্ষিপ্ত সিলেবাস প্রণয়ন করা হয়েছে। এর ভিত্তিতে এসএসসি এবং এইচএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। তার আগে শিক্ষার্থীরা তিন-চার মাস পরীক্ষার প্রস্তুতি নেওয়ার সুযোগ পাবেন।

করোনার প্রকোপ বেশি থাকায় গত বছরের এইচএসসি পরীক্ষা না নিয়ে জেএসসি ও এসএসসির ফলের ভিত্তিতে ওই পরীক্ষার ফল ঘোষণা করতে সংসদে একটি আইনের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এবছরের এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার্থীরাও অটোপাসের দাবিতে আন্দোলন করছে।

অটোপাসের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, কোনো ধরনের স্বাস্থ্যবিধি না মেনে আপনারা যেভাবে আন্দোলন করছেন; এই ক্ষেত্রে বরং করোনায় আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। সব ধরনের স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষার্থীদের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করে পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হবে। সুতরাং আপনাদের এই বিষয়ে উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছু নেই।

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে মন্ত্রী আরও বলেন, ২০২০ সালে এইচএসসি পরীক্ষার্থীরা পরীক্ষা দেওয়ার জন্য সবপ্রস্তুতি সম্পন্ন করেছিল কিন্তু, সেসময় সংক্রমণের হার বেশি থাকায় সরকার তাদের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে অটোপাসের চিন্তা করেছে। কিন্তু ২০২১ সালে যারা পরীক্ষার্থী তাদের ক্ষেত্রে বিষয়টি ভিন্ন। তারা তেমন প্রস্তুতি নিতে পারেনি। সুতরাং তাদের অটোপাস দেওয়া সম্ভব নয়। সংক্রমণের হার ও আস্তে আস্তে কমে যাচ্ছে।  

নায়েমে সদ্য স্থাপিত ‘বঙ্গবন্ধু ম্যুরাল’র উন্মোচন এবং ১৫৯তম বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ কোর্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অনলাইনে অংশ নেন শিক্ষামন্ত্রী।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, নায়েমে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরাল স্থাপন করা হয়েছে যা অত্যন্ত প্রশংসনীয় উদ্যোগ। একটি স্বাধীন সার্বভৌম রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা করার জন্য যে ত্যাগ তিতিক্ষা ও সংগ্রাম প্রয়োজন বঙ্গবন্ধু তার সবকিছুই করেছেন। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গড়ার জন্য সোনার মানুষ তৈরি করতে হবে। দেশের শিক্ষকরা হচ্ছে সোনার মানুষ গড়ার কারিগর। দেশের সব শিক্ষককে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বুকে ধারণ করতে হবে।

নায়েম মহাপরিচালক প্রফেসর আহম্মেদ সাজ্জাদ রশীদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!