ব্রেকিং নিউজ
Home | লোহাগাড়ার সংবাদ | একটি ব্রীজের অভাবে এলাকাবাসীর দূর্ভোগ

একটি ব্রীজের অভাবে এলাকাবাসীর দূর্ভোগ

05

এলনিউজ২৪ডটকম : লোহাগাড়ার পুটিবিলা এমচরহাট-নারিশ্চা সংযোগস্থলে ডলুখালের উপর একটি ব্রীজের অভাবে প্রতিদিন হাজার হাজার এলাকাবাসী দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন। ব্রীজটি স্থাপিত হলে ঘোর পথে ৩ মাইল দূরত্ব কমে যাবে। এলাকার অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি বেগবান হবে বলে চুনতি ৫নং ওয়ার্ড মেম্বার মোঃ আবদুল মান্নান দাবী করছেন।

তিনি জানিয়েছেন, এমচরহাটের সাথে নারিশ্চা, চান্দাসহ চুনতি ৫নং ওয়ার্ড, আধুনগর ও আজিজনগরের সাথে ডলুখালের এ স্থানে ১৪০ ফুট দৈর্ঘ্যরে এ ব্রীজ অতীব গুরুত্বপূর্ণ। প্রতিদিন এ এলাকার অনধিক ৫ হাজার লোকজন ও শিক্ষার্থী যাতায়াত করেন। মাত্রাতিরিক্ত বালি উত্তোলনের ফলে ডলুখাল গভীর হয়েছে। স্থানীয়রা নিজের উদ্যোগে এ স্থানে একটি বাঁশের সাকো নির্মাণ করেছেন। ব্রীজটি অতিক্রম করার সময় জনপ্রতি ১০ টাকা হারে টোল আদায় করা হয়। প্রতি বৃহস্পতি ও রবিবার এমচরহাট বসে। হাটে এলাকাবাসীরা উৎপাদিত পণ্য সামগ্রী ক্রয়-বিক্রয় করেন।

শিক্ষার্থীরা নারিশ্চা প্রাইমারী স্কুল, পুটিবিলা হাইস্কুল, হামেদিয়া মাদ্রাসা ও অন্যান্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যাতায়াত করেন। বর্ষা মৌসুমের ডলুর প্রবল স্রোতের কারণে অনেক সময় শিক্ষার্থীরা ভেসে যায় বলে অভিযোগ রয়েছে। রাতের আধারে অস্থায়ী সাকো পারাপারের সময় অনেকে নদীতে পড়ে যান। রোগাক্রান্ত লোকজনকে কাঁদে করে নারিশ্চা থেকে এমচরহাটে নিয়ে আসা হয়। প্রসূতিরা অনেক সময় ঘোর পথে আসতে বিলম্বের কারণে পথেই সন্তান প্রসব করেন।

লোহাগাড়া সদরের সাথে এ এলাকার যোগাযোগের অন্যতম মাধ্যম। দরবেশহাট ডিসি রোডের এমচরহাট সংলগ্ন ব্রীজ ভারী গাড়ি চলাচলের কারণে বর্তমানে এ ব্রীজটিও ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। সম্প্রতি প্রফেসর ড. আবু রেজা মুহাম্মদ নেজাম উদ্দিন নদভী এমপি এলাকা পরিদর্শনকালে এখানে একটি ব্রীজ স্থাপনের আশ্বাস দিয়েছেন।

কঠিন চীবর দানোৎসবে উপস্থিত হয়ে লোহাগাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসারও ব্রীজ স্থাপনের আশ্বাস দিয়েছেন।

লোহাগাড়া উপজেলা প্রকৌশলী প্রতিপদ দেওয়ান জানিয়েছেন, তারা ব্রীজ নির্মাণের জন্য ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছেন। তবে কবে নাগাদ ব্রীজের কাজ শুরু হবে তা জানা যায়নি।

সরেজমিন পরিদর্শনে এ প্রতিনিধি জানতে পেরেছেন ইতোপূর্বে ব্রীজ স্থাপনের কথা বলে অনেকে নির্বাচনী বৈতরণী পার হয়েছেন। এলাকাবাসীর চোখের জল ডলুর পানির সাথে মিশে গেছে। তাদের অন্তহীন দূর্ভোগের অবসান হয়নি। অনতিবিলম্বে ব্রীজটি স্থাপনের জন্য ভূক্তভোগীরা সংশ্লিষ্ট উর্ধতন কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*