Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | উত্তরে তাবিথ, দক্ষিণে ইশরাক বিএনপির প্রার্থী

উত্তরে তাবিথ, দক্ষিণে ইশরাক বিএনপির প্রার্থী

image_printপ্রিন্ট করুন

tabith-20191228185656

নিউজ ডেক্স : ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে তাবিথ আউয়ালকে দলীয় মনোনয়ন দিয়েছে বিএনপি। এছাড়া দক্ষিণে চূড়ান্ত মনোনয়ন পেয়েছেন ইশরাক হোসেন।

শনিবার সন্ধ্যায় রাজধানীর গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে মেয়র পদে দুই প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

এর আগে বিকেল সাড়ে ৪টায় বিএনপির মনোনয়ন বোর্ডের সদস্যরা বৈঠকে বসেন। বৈঠক শেষে মেয়র পদে তিন মনোনয়নপ্রত্যাশীর সাক্ষাৎ নেন তারা। এ সময় লন্ডন থেকে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান স্কাইপে যুক্ত হয়ে দুই প্রার্থীকে পরামর্শ দেন।

মনোনয়ন বোর্ডের সদস্যদের মধ্যে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, জমিরউদ্দীন সরকার, নজরুল ইসলাম খান, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, মির্জা আব্বাস, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ড. আব্দুল মঈন খান, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু ও সেলিমা রহমান উপস্থিত ছিলেন।

গত শুক্রবার ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে দলীয় মনোনয়নপত্র জমা দেন বিএনপির তিন নেতা। তারা হলেন আসাদুজ্জামান রিপন, তাবিথ আওয়াল ও ইশরাক হোসেন।

এদিন বিকেল ৪টার দিকে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ঢাকা উত্তরে মেয়র পদে মনোনয়নপ্রত্যাশী তাবিথ আওয়াল এবং ঢাকা দক্ষিণে মেয়র পদে মনোনয়নপ্রত্যাশী ইশরাক হোসেন একসঙ্গে আসেন।

প্রথমে তাবিথ আওয়াল এবং পরে ইশরাক হোসেন দলীয় মনোনয়নপত্র বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী আহমেদের কাছে জমা দেন। এরপর ডিএনসিসিতে মেয়র পদে মনোনয়নপ্রত্যাশী বিএনপির বিশেষ সম্পাদক আসাদুজ্জামান রিপন তার মনোনয়নপত্র জমা দেন।

ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণে কাউন্সিলর পদে বিএনপির মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন ৪৭৬ প্রার্থী। ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপি দফতর সম্পাদক এবিএমএ রাজ্জাক জানান, কাউন্সিলর পদে তিন দিনে সর্বমোট ১৯৬টি মনোনয়নপত্র বিক্রি হয়েছে। এর মধ্যে সংরক্ষিত নারী আসনের ৩৪টি। শুক্রবার সন্ধ্যা নাগাদ সব কয়টি মনোনয়ন ফরম জমা পড়েছে।

ঢাকার দুই সিটির তফসিল অনুযায়ী, মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন ৩১ ডিসেম্বর, বাছাই ২ জানুয়ারি, প্রত্যাহারের শেষ দিন ৯ জানুয়ারি, ভোট গ্রহণের দিন ৩০ জানুয়ারি। দুই সিটির ভোটগ্রহণ ইভিএমে নেয়ার কথা জানায় নির্বাচন কমিশন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

error: Content is protected !!