ব্রেকিং নিউজ
Home | দেশ-বিদেশের সংবাদ | আরাকান আর্মির শীর্ষ নেতা রেনেজু মারমাকে গ্রেফতার

আরাকান আর্মির শীর্ষ নেতা রেনেজু মারমাকে গ্রেফতার

Dr.-Rannin-Soe20151014024547

মিয়ানমারের বিচ্ছিন্নতাবাদী দল আরাকান আর্মির শীর্ষ নেতা ডা. রেনিন সোয়ে ওরফে রেনেজু মারমাকে গ্রেফতার করেছে যৌথবাহিনী। মঙ্গলবার রাত ৩টার দিকে রাঙামাটির রাজস্থলীর ইসলামপুর নামক এলাকার নতুনপাড়া থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। রাজস্থলী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অহিদ উল্ল্যাহ সরকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ওই এলাকায় রেনিন সোয়ের অবস্থান নিশ্চিত হওয়ায় যৌথবাহিনী এক অভিযানে নামে। অভিযানে নেতৃত্ব দেন রাজস্থলী সেনাবাহিনীর কর্মকর্তা মেজর সাব্বির। অভিযানে পুরো এলাকাটি ঘিরে ফেলেন যৌথবাহিনীর সদস্যরা। এক পর্যায়ে ওই এলাকার নতুনপাড়ার একটি বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

ওসি আরো জানান, গ্রেফতারের পর বর্তমানে রেনিন সোয়েকে রাজস্থলী থানা পুলিশের হেফাজতে রাখা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে রাজস্থলী থানায় পৃথক দুটি মামলা করা আছে। একটি বিদেশি অনুপ্রবেশ এবং অপরটি সন্ত্রাস দমন আইনে। আইনি প্রক্রিয়া শেষ করে তাকে রাঙামাটি  আদালতে নেয়া হবে।

জানা যায়, রাঙামাটির রাজস্থলীতে সুরম্য বাড়ি করে সামাজিক কর্মকাণ্ডের আড়ালে গত প্রায় দেড় দশক ধরে আরাকান আর্মির তৎপরতা চালিয়ে আসছিলেন দলটির শীর্ষ নেতা ডা. রেনিন সোয়ে ওরফে রেনেজু মারমা। মিয়ানমার থেকে রাজস্থলী এসেছিলেন ২০-২৫ বছর আগে। সেখানে স্থানীয় মেয়ে হ্লাচিং নু মারমাকে বিয়ে করেন তিনি।

সম্প্রতি বান্দরবানের থানচির বড় মদকে বিজিবির একটি টহল দলের ওপর গুলি বর্ষণ করে আরাকান আর্মি হামলা চালালে ২৭ আগস্ট ডা. রেনিন সোয়ের রাঙামাটির রাজস্থলীর সুরম্য বাড়িতে অভিযান চালায় যৌথবাহিনী। ওই সময় বাড়ি থেকে ঘোড়া, মোটরসাইকেল, ল্যাপটপ, ক্যামেরা, আরাকান আর্মির পোশাকসহ বেশ কিছু সরঞ্জাম উদ্ধারসহ আরাকান আর্মির সদস্য অংনু ইয়ং রাখাইনকে আটক করা হয়।

একদিন পর ২৮ আগস্ট বাড়ির দুই কেয়ারটেকার মংশৈ অং মারমা ও জসি অং মারমাকে আটক করে পুলিশ। ওই ঘটনায় রাজস্থলী থানায় পৃথক দুইটি মামলা করে পুলিশ। মামলা দুটির মূল আসামি বাড়ির মালিক ও আরাকান আর্মির শীর্ষ নেতা ডা. রেনিন সোয়ে ওরফে রেনেজু মারমা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*